চাচার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর

চাচার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর

হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে আপন চাচার ধর্ষণের শিকার হয়ে দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে ভাতিজি (১৭)। বৃহস্পতিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে অভিযুক্তকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। অভিযোগ রয়েছে- দিনের পর দিন তাকে ধর্ষণ করেছে ওই চাচা।

এ তথ্য নিশ্চিত করে রাতে চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি মো. আলী আশরাফ জানান, বুধবার রাতে কিশোরী নিজেই বাদী হয়ে চুনারুঘাট থানায় মামলা দায়ের করে।

রাতেই অভিযুক্ত চাচাকে গ্রেপ্তার করা হয়।মামলা সূত্রে জানা যায়, কিশোরীর বাবা কর্মের কারণে বেশির ভাগ সময় বাড়ির বাইরে থাকেন। একই বাড়িতে থাকেন চাচা। গত বছরের ৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় বাড়ির বাইরে প্রথম কিশোরীকে ধর্ষণ করেন অভিযুক্ত। বিষয়টি প্রকাশ করলে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। ভয়ে কিশোরী ঘটনাটি কাউকে জানায়নি।

৫ ফেব্রুয়ারি রাতে আবারও তাকে ধর্ষণ করা হয়। ধর্ষণের শিকার ওই কিশোরী দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা। শারীরিক পরিবর্তন দেখে তার মা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে ভুক্তভোগী সব ঘটনা খুলে বলে।

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলী আশরাফ জানান, ধর্ষণের ঘটনায় মামলা নেওয়া হয়েছে। অভিযুক্তকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে এবং কিশোরীকে পুলিশ হেফাজতে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।