জগন্নাথপুরে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় নার্সের অবহেলা পেয়েছে তদন্ত কমিটি

জগন্নাথপুরে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় নার্সের অবহেলা পেয়েছে তদন্ত কমিটি

জগন্নাথপুর প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীর মৃত্যুর ঘটনায় নার্সের অবহেলাকে দায়ী করে প্রতিবেদন দিয়েছে তদন্ত কমিটি। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চার সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি মঙ্গলবার এ প্রতিবেদন দাখিল করে। প্রতিবেদনে নার্স তাহমিনা বেগমের দায়িত্বে অবহেলার কথা বলা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ৩ সেপ্টেম্বর ছাতক উপজেলার ভাতগাঁও গ্রামের আব্দুল হামিদ (৫২) শ্বাসকষ্ট নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হন। পরদিন রাত ১১ টায় তার শ্বাসকষ্ট বাড়লে সঙ্গে থাকা স্ত্রী সন্তানরা কর্তব্যরত নার্স তাহমিনা বেগমের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এসময় চিকিৎসকের খুঁজে নার্সের সহযোগিতা চাইলে নার্স তাহমিনা বেগম চিকিৎসক নিদিষ্ট সময়ে এসে দেখবেন বলে জানান। চিকিৎসক ও নার্সের অবহেলায় কোন চিকিৎসা না পেয়ে রাত ১২ টার দিকে আব্দুল হামিদ মারা যান। এসময় স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়ে নার্স ও চিকিৎসকের অবহেলায় রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ করেন।

এঘটনায় স্বজনদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে ৬ সেপ্টেম্বর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জুনিয়র কনসালটেন্ট (অর্থপেট্রিক) রাজিব পালকে প্রধান করে চার সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটি মঙ্গলবার প্রতিবেদন দাখিল করে। এতে চিকিৎসককে দায়ী না করে শুধু নার্স তাহমিনা বেগমের দায়িত্বে অবহেলার কথা বলা হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মধু সুধন ধর বলেন, তদন্ত কমিটি নার্সের কিছুটা অবহেলা পেয়েছে বলে তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছেন। আমি তাদের প্রতিবেদন প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সিভিল সার্জন বরাবরে পাঠিয়েছি।